পারভেজ উজ্জ্বল, রংপুর ব্যুরো : সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে জাগো ফাউন্ডেশন এবং ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ দীর্ঘদিন ধরে জনসচেতনতা মূলক বিভিন্ন কর্মসূচি চালিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় সারা দেশের মতো নীলফামারিতে ও সাধারণ মানুষকে মাস্ক ব্যবহারে উৎসাহিত করতে এবং সঠিক নিয়মে মাস্ক পরতে ‘আপনার মাস্ক কোথায়?’ শারদ পর্ব শিরোনামে সচেতনতামূলক কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

এই ক্যাম্পেইনের লক্ষ্য ছিল সারা হিন্দু ধর্মের সবচেয়ে বড় উৎসব দূর্গা পূজা।পূজো দেখতে আসা সকল মানুষ যেন মাস্ক পরে আসে এবং সামাজিক বিধিনিষেধ মেনে চলে সেই বিষয়ে তাদের কে উৎসাহ জোগানো।
১৩ অক্টোবর বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টায় নীলফামারীর কেন্দ্রীয় কালী মন্দিরে মাস্ক বিতরণ ও সচেতনতা তৈরির উপর ক্যাম্পেইন চালানো হয়।নীলফামারী সহ দেশজুড়ে প্রায় ছয় হাজার ভলান্টিয়ার এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে।
সকলের হাতে ছিল জনসচেতনতামূলক পোস্টার এবং প্ল্যাকার্ড।

ক্যাম্পেইনে উপস্থিত নীলফামারী ভিবিডি ইউনিটের সভাপতি গোলাম রাব্বি শাহ, ভিবিডি নীলফামারী ইউনিটের সাধারন সম্পাদক মোস্তাফিজার আলী পিয়াস, ইউনিটের সদস্য তুহিন,মুছা প্রমুখ।
এসময় গোলাম রাব্বী শাহ বলেন,সাধারণ মানুষ আমাদের ক্যাম্পেইন কে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে গ্রহন করেছেন।আমরা সবসময় ভালো কাজ করে যেতে চাই।
জাগো ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক করভী রাকসান্দ বলেন, বাংলাদেশে স্যানিটাইজার ব্যবহারে মানুষের আগ্রহ দেখা গেলেও, মাস্ক ব্যবহারে রয়েছে অনীহা এবং অবহেলা। জাগো ফাউন্ডেশন এবং ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ চলমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতির শুরু থেকেই বিভিন্ন রকম সচেতনতামূলক কাজ করে যাচ্ছে। এই মাস্ক ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে সারা দেশের মানুষকে মাস্ক পরতে উৎসাহিত এবং সঠিক নিয়মে মাস্ক পরতে সচেতন করার চেষ্টা করছি
এর আগে সকালে ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ নীলফামারী ইউনিট এর পক্ষ থেকে নীলফামারী জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী কে ফুল এবং সংগঠনের টিশার্ট প্রদান করা হয়।
জেলা প্রশাসক সবসময় ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশ নীলফামারী ইউনিট এর পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে