চিত্রনায়ক অনন্ত জলিলের এ জে আই গ্রুপের চুরি যাওয়া ৫৭ লাখ টাকার সন্ধান পাওয়া গেছে। এর মধ্যে তার সাবেক গাড়িচালকের বাড়ির উঠান খুঁড়ে উদ্ধার করা হয়েছে ২০ লাখ টাকা। এ ঘটনায় জড়িত গাড়িচালকসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা জেলার গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

অনন্ত জলিল তার ফেসবুক পেজে এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

আসামিরা হলেন, গাড়িচালক শহীদ বিশ্বাস (৩৭), তার স্ত্রী আরজু বেগম (২৬) ও শহীদের শ্যালক জুয়েল (২১)। ভোলা জেলার দৌলতখান থানার জয়নগর গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়। আসামির স্বীকারোক্তি ও দেখানো মতে শহীদের নির্মাণাধীন বাড়ির সামনে মাটির নিচ থেকে ২০ লাখ টাকা এবং তার স্ত্রী আরজুর কাছ থেকে ৭ লাখ ৫০ হাজার।

অনন্ত জলিলের এ জে আই গ্রুপের ৫৭ লাখ টাকা চুরির ঘটনায় গত ৭ এপ্রিল সাভার মডেল থানায় মামলা হয়। মামলায় গাড়িচালক শহীদ বিশ্বাস ও হিসাবরক্ষণ বিভাগের নির্বাহী জহিরুল ইসলামের নাম উল্লেখ করা হয়।

জানা যায়, গ্রেফতারকৃতরা বুধবার ঢাকার আদালতে ওই তিন আসামি টাকা চুরি করার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন।

টাকা চুরি যাওয়ার পর ফেসবুকে অনন্ত জলিল লিখেছিলেন, ‘আমার ভক্তদের কাছে আমি একটি সাহায্য চাচ্ছি। আপনারা সবাই জানেন, ১৯৯৬ সাল থেকে সাভারের হেমায়েতপুরে অবস্থিত এ জে আই গ্রুপ সুনামের সঙ্গে পরিচালিত হয়ে আসছে। আমার কারখানার এক গাড়িচালক ৫৭ লাখ টাকা গ্যাস বিল না দিয়ে পালিয়েছে। এরই মধ্যে থানায় মামলা করা হয়েছে। যে এই প্রতারককে ধরিয়ে দিতে পারবেন, তাকে আমি নিজ হাতে পুরস্কৃত করব।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে