টাচ নিউজ ডেস্কঃ বহু গুণে গুণান্বিত রুবিনা আলমগীর ছোট থেকেই সাংস্কৃতিক মনা ছিলেন। নাচ গানের প্রতি ছিলো তার টান, কখনো স্কুলে গানের প্রতিযোগিতায়,কখন মসজিদে গজল প্রতিযোগিতায় জয়ী হতেন।

তার গান স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকা সহপাঠী সবাই পছন্দ করতেন আর মসজিদের ইমাম সহ আরবী পড়ার সহপাঠীরাও পছন্দ করতেন।

তার এমন আগ্ৰহ দেখে তার মা তাকে গানের স্কুলে ২০০৬ ভর্তি করেন। কয়েক মাস গানের তালিম নেয় তার পর বেশ কিছু গানের লাইভ ষ্টেজ শো করেন। এর পর নাচের প্রতি অধিক ঝোঁকে পরেন। নাচের সূত্রেই প্রডিউস থেকে ডান্স কোরিওগ্রাফি এবং মডেলিং করা।

অভিনয়, উপস্থাপনা, রচনা থেকে পরিচালনাতেও নাম যুক্ত করে রুবিনা আলমগীর। এ পর্যন্ত মিডিয়ার সব মাধ্যমেই কাজ করেছেন। কখনো সিনেমা, নাটক, ওয়েব ফিল্মে আইটেম গাল হয়ে। কখনো ডকুমেন্ট ফিল্ম, মিজিক্যাল ফিল্ম,প্যাকেজ নাটক থেকে শট ফিল্মের নায়িকা হয়ে অভিনয়ে।

কখনো টেলিভিশনে নৃত্যের অনুষ্ঠানে কখনো মঞ্চ মাতিয়েছেন নৃত্যের ছন্দে। আবার কখনো দেখা গেছে মঞ্চে উপস্থাপনায় বা অভিনয়ে ও হাজির হয়েছেন। কখনো ভয়েজ আটিস্ট হয়েও দিয়েছে দক্ষতার প্রমাণ।

এবার হাজির হলেন মায়ের উৎসাহে মায়ের ইচ্ছা পূরণে আবার গানে।

রুবিনা আলমগীর বলেন, ১৪ বছর প্রায় গানের রেওয়াজ নেই কন্ঠের যতন নেই হুট করেই ৪ টি কভার সং গেয়েছি শুটিং শেষ এখন এডিটিং চলছে যানি না দশক কিভাবে গ্ৰহণ করবেন। সামনের সপ্তাহে ইনশাআল্লাহ দশক মিউজিক ভিডিওটি দেখতে পাবে।

তিনি বলেন, গানটা সখে গেয়েছি ভুল ক্ষমা দৃষ্টিতে দেখবে দর্শক এই আশা রাখি। আমি নাচ এবং মডেলিং করতেই সাচ্ছন্দ্য বোধ করি সব সময়।

দর্শক শ্রোতাদের কাছে দোয়া চেয়ে রুবিনা আলমগীর বলেন, অভিনয় জগতে যেমন আপনাদের ব্যপক সাড়া পেয়েছি, আপনাদের মনের মতো অভিনেতা হতে পেরেছি। গান গেয়েও ঠিক সেভাবেই আপনাদের মন জয় করতে চাই। আপনাদের  এত এত ভালোবাসাই আমার অনুপ্রেরণা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে