টাচ নিউজ ডেস্কঃ ভোলার মেঘনা নদীতে পলি মাটি জমে নাব্যতা সঙ্কটের কারণে ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌ-রুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। গত প্রায় ৩ মাস ধরে ফেরি চালকরা এই দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। ফলে ভোলা-লক্ষ্মীপুর মহাসড়কের উভয় পাড়ে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। আর এতে দিনের পর দিন পরিবহন শ্রমিক ও সাধারণ যাত্রীদের ভোগান্তিরও শেষ নেই।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) ভোলার ইলিশাঘাটের ব্যবস্থাপক মো. পারভেজ খান জানান, ভোলার ইলিশাঘাটের নতুন একটি চ্যানেল ও লক্ষ্মীপুরের রহমত খালি চ্যানেলে এই নাব্যতা সঙ্কট দেখা দিয়েছে।

রহমত খালি চ্যানেলে কিছুটা ড্রেজিং থাকলেও তা কোনো কাজে আসছে না। এছাড়া ইলিশাঘাটে নতুন যে ডুবো চরটি জেগে উঠেছে সেটিও ড্রেজিং করার বিষয়ে এখনো কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

ইলিশা ঘাটের এই কর্মকর্তা আরও জানান, নতুন চরটি ড্রেজিং করার জন্য একাধিকবার বিআইডব্লিউটিসি’র মেরিন বিভাগের ভোলা সহ-ব্যবস্থাপক হারুনর রশীদকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এতো চিঠি দিয়েও এখন পর্যন্ত এর কোনো সুফল পাওয়া যায়নি।

তিনি আরও জানান, নদীতে শুধু নাব্যতা সঙ্কটই নয়, রাতে ফেরি চলাচলের জন্যও পর্যাপ্ত বয়াবাতি নেই।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে