টাচ নিউজ ডেস্কঃ আকস্মিক হ্যাকারদের কবলে পড়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর টুইটার অ্যাকাউন্ট। এরই মধ্যে তার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে বিট কয়েন নিয়ে ভুয়া তথ্য ছড়ানো হয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে।

গত শনিবার মধ্যরাতে হ্যাক করা হয় তার টুইটার অ্যাকাউন্টটি। যদিও অতি অল্প সময়ের মধ্যেই সেটিকে পুনরায় হ্যাকারদের হাত থেকে উদ্ধার করা হয়।

রবিবার (১২ ডিসেম্বর) সকালে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে পাঠানো টুইট বার্তায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে। এদিন হ্যাক করে ছড়ানো বার্তা এড়িয়ে চলার আহ্বানও জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।

ভারতের মিডিয়ামগুলো বলছে, শনিবার মধ্যরাতে প্রধানমন্ত্রীর টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে এক বার্তায় দাবি করা হয়, ভারতে খুব দ্রুত বৈধতা পাচ্ছে বিট কয়েন। সরকার এরই মধ্যে ৫০০ বিট কয়েন ক্রয় করেছে। দ্রুত দেশবাসীর মধ্যে তা ভাগ করে দেওয়া হবে। এ সময় একটি লিঙ্কও সেখানে শেয়ার করা হয়।

এরপর মোদীর টুইটার অ্যাকাউন্টের সেই স্ক্রিনশট ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। পরবর্তীকালে বিষয়টি নিয়ে তীব্র সমালোচনা চলতে থাকে নেটমাধ্যমে। যদিও অনেকেই এতে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানান। তাদের মতে, নরেন্দ্র মোদীর অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে। যে লিঙ্কটি শেয়ার করা হয় তা ক্লিক করতে নিষেধও করেন অনেকে।

কিন্তু দ্রুতই অ্যাকাউন্ট উদ্ধার করে টুইট বার্তাটি সরিয়ে ফেলা হয় এবং বিষয়টি জনগণের কাছে পরিষ্কার করা হয়।

উল্লেখ্য, অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয়টি নিয়ে এরই মধ্যে বিবৃতি দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। যদিও কারা এই অ্যাকাউন্ট হ্যাকের সঙ্গে জড়িত সে বিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে