টাচ নিউজ ডেস্ক: ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবার ক্ষেত্রে সারা দেশে অভিন্ন দর নির্ধারণ করেছে সরকার। এখন থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে ৫ এমবিপিএস সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা, ১০ এমবিপিএস সর্বোচ্চ ৮০০ টাকা এবং ২০ এমবিপিএসের জন‌্য সর্বোচ্চ ১ হাজার ২০০ টাকা খরচ করতে হবে গ্রাহককে।

রোববার (৬ জুন) রাজধানীতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) মিলনায়তনে প্রান্তিক পর্যায়ে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের ‘এক দেশ এক রেট’ ট্যারিফের উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

বিটিআরসি বলছে, সেবাদাতারা চাইলে এই দামের চেয়ে কম দাম নিতে পারবে। তবে, কোনোভাবেই বেশি অর্থ নেওয়া যাবে না।

এক রেট নির্ধারণের ফলে এ খাতে শৃঙ্খলা ফিরবে বলে মনে করছেন ইন্টারনেট সেবাদাতারা।

বিটিআরসির হিসাব অনুযায়ী, বর্তমানে বাংলাদেশে ২৪০৯ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ ব্যবহৃত হচ্ছে। এর মধ্যে ১০১৭ জিবিপিএস ব্যবহার করছেন সাড়ে ১০ কোটি গ্রাহক। ১৩৯৮ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ ব্যবহার করছেন ৯৮ লাখ গ্রাহক। যেখানে দামে নিয়ে ছিল অরাজকতা। কোথাও ৫০০ টাকা আবার কোথাও ৭০০ টাকা।

অবশেষে ‘এক দেশ এক রেট‘ নির্ধারণ করা হলো। দফায় দফায় বৈঠক শেষে গত ২৮ মে ইউনিয়ন পর্যায়ে অভিন্ন দাম নির্ধারণ করে দেওয়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে