টাচ নিউজ ডেস্ক: যাত্রার দুই যুগ পর বন্ধ হয়ে গেল জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশন অ্যাডোবি ফ্ল্যাশ প্লেয়ার। ১৯৯৬ সালে যাত্রা শুরুর পর ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের কাছে তুমুল জনপ্রিয়তা পায় অ্যাপ্লিকেশনটি। তবে হাল আমলের আধুনিক প্রযুক্তির সঙ্গে দৌড়ে টিকতে না পেরে অবশেষে চিরতরে বন্ধ হয়ে গেল অ্যডোবি ফ্ল্যাশ প্লেয়ার।

গত কয়েক বছর ধরে নিরাপত্তাজনিত নানা ধরনের সমস্যা মোকাবিলা করতে হচ্ছিল অ্যাডবি ফ্ল্যাশ প্লেয়ারকে। তাছাড়া আধুনিক ডিভাইসের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আপডেটও করা যাচ্ছিল না এ অ্যাপ্লিকেশনটিকে। ফলে মার্কিন মাল্টিন্যাশনাল সফটওয়্যার কোম্পানি অ্যাডোবি এই অ্যাপ্লিকেশনটি আর আপডেট না করার ঘোষণা দিয়েছে। এছাড়া ব্যবহারকারীদের অবিলম্বে অ্যাডোবি ফ্ল্যাশ প্লেয়ার আন-ইন্সটল করারও পরামর্শ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

ফিউচার স্প্ল্যাশ মাল্টিমিডিয়া কোম্পানি ১৯৯৬ সালের এ অ্যাপ্লিকেশনটি তৈরি করে। তখন এর নাম দেওয়া হয়েছিল ফিউচার স্প্ল্যাশ এনিমেটর। তবে পরবর্তীতে ১৯৯৭ সালে ম্যাক্রোমিডিয়া কোম্পানি ফিউচার স্প্ল্যাশ কোম্পানিটি কিনে নেয়। পরে আরও একবার অ্যাপ্লিকেশনটির মালিকানা বদল হয়। ২০০৫ সালে ম্যাক্রোমেট সহ অ্যাপ্লিকেশনটির মালিকানা চলে যায় মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাডোবির হাতে। তখন থেকেই অ্যাডোবি ফ্ল্যাশ প্লেয়ার নামে পরিচিত পায় অ্যাপ্লিকেশনটি।

উল্লেখ্য, ওয়েবসাইটে বড় ভিডিও, অডিও, অ্যানিমেশন, ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন চালাতে অ্যাডোব ফ্ল্যাশ প্লেয়ার ব্যবহার করা হয়ে থাকে। ইন্টারনেট যুগের শুরুর দিকে ব্রাউজারগুলোতে এ অ্যাপ্লিকেশনের ব্যপক ব্যবহার হয়েছে। ২০০৯ সালে অ্যাডোবি জানিয়েছিল বিশ্বজুড়ে ৯৯ শতাংশ ডেকসটপ কম্পিউটারে অ্যাডোবি ফ্ল্যাশ প্লেয়ার ব্যবহার হচ্ছে। তবে সাম্প্রতিককালে স্মার্টফোনের ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় এ অ্যাপ্লিকেশনটির প্রয়োজনীয়তা কমতে থাকে ব্যবহারকারীদের কাছে। অবশেষে ইন্টারনেট যুগের প্রথমদিককার অ্যাপ্লিকেশনটি বন্ধই করে দিতে হলো অ্যাডোবিকে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে