টাচ নিউজ ডেস্কঃ পণ্যের সংকটে শুরু হওয়া ব্যাপক বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণে শ্রীলঙ্কার সরকার এরই মধ্যে দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছে। তবে এমন পরিস্থিতির মধ্যে ৪০ হাজার টন ডিজেল নিয়ে একটি জাহাজ দ্বীপ রাষ্ট্রটিতে পৌঁছেছে। বিকেলে দেশব্যাপী এ তেল সরবরাহ করা হবে। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাধীনতার পর এই প্রথম এত অর্থ সংকটে পড়েছে শ্রীলঙ্কা। ডলার সংকটের কারণে পণ্য আমদানি প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। অন্যদিকে তেলের অভাবে দেশজুড়ে নেমে এসেছে অন্ধকার।

জানা গেছে, শ্রীলঙ্কার বাস ও বাণিজ্যিক যানবাহনের জন্য ডিজেল অন্যতম জ্বালানি। তবে স্টেশনগুলোতে প্রয়োজনীয় জ্বালানি না থাকায় ভেঙে পড়েছে পরিবহন ব্যবস্থা।

এদিকে তীব্র অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পড়া শ্রীলঙ্কায় সরকারবিরোধী বিক্ষোভ দমাতে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে। শুক্রবার (১ এপ্রিল) দিনগত মধ্যরাতে দেশব্যাপী জরুরি অবস্থা জারির এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

বিদেশি ধার-দেনা পরিশোধ নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে থাকা শ্রীলঙ্কা আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গে আলোচনার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। এদিকে, ভারতের কাছেও ঋণ সহায়তা চেয়েছে দেশটি। গত এক দশকে চীনের কাছ থেকে ৫০০ কোটি ডলার ঋণ নিয়েছে শ্রীলঙ্কা। অর্থনৈতিক সংকট তৈরি হওয়ার ফলে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ঋণ পুনর্গঠনের অনুরোধও জানিয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে