টাচ নিউজ ডেস্ক: তালেবানের আফগানিস্তান দখলের পর ম প্রকাশ্যে এসে বাইডেন স্বীকার করেছেন, তালেবানের এ অগ্রযাত্রা ধারনার চেয়েও বেশি তাড়াতাড়ি হয়ে গেছে। তালেবানের কাবুল দখলের পর সেখানকার পরিস্থিতি আতংকজনক হওয়া সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

হোয়াইট হাউসে তিনি বলেন, যে দেশের নেতারা সব ছেড়ে পালিয়ে যায় সে জাতিকে মার্কিন সৈন্যদের রক্ষা করা সম্ভব নয়।

তিনি আরো বলেন, তাদের নিজস্ব ভবিষ্যত তৈরির সকল সুযোগ আমরা তাদের দিয়েছি। কিন্তু ভবিষ্যতের জন্য
লড়াই করার ইচ্ছে শক্তি আমরা তাদের সরবরাহ করতে পারি না।

বাইডেন বলেন, যেখানে আফগান বাহিনী নিজেদের জন্য যুদ্ধ করতে ইচ্ছুক নয়, সেখানে আমেরিকান সৈন্যের এই যুদ্ধ করা এবং এই যুদ্ধে প্রাণ দেয়া উচিত নয়।

এদিকে তালেবানের কাবুল দখলের পর সেখানে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। তালেবানের ১১৯৬ থেকে ২০০১ সময়কার কট্টর শাসনের কথা স্মরণ করে কাবুলবাসীর অনেকেই দেশ ছাড়তে মরিয়া হয়ে ওঠে। হাজার হাজার আফগান বিমানবন্দরে ভিড় করলে সেখানকার পরিস্থিতি বিশৃঙ্খল হয়ে পড়ে।

যুক্তরাষ্ট্র তার দূতাবাস কর্মী এবং মার্কিন বাহিনীকে সহায়তকারী আফগানদের সরিয়ে নেয়ার কাজ সম্পন্ন করতে ইতোমধ্যে ছয় হাজার সৈন্য পাঠিয়েছে। ফ্রান্স, জার্মানী ও অষ্ট্রেলিয়াসহ অন্যন্যা দেশের সরকার ভাড়া করা বিমানে করে তাদের নাগরিকদের সরিয়ে নিচ্ছে।

এদিকে বাইডেন তালেবানের প্রতি কড়া হঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, তারা যদি মার্কিন সৈন্য কিংবা মার্কিন স্বার্থ সংশ্লিষ্ট যে কোন বিষয়ে হুমকি তৈরি করে তাহলে সামরিকভাবে এর কঠোর জবাব দেয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে