বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশনায়ক জনাব তারেক রহমানের সহধর্মিনী মেধাবী চিকিৎসক বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ জুবাইদা রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও হয়রানিমূলক মামলা বাতিল আবেদন (লিভ টু আপিল) খারিজের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম।

আজ এক বিবৃতিতে বিএনপি’র স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক বলেন, “ডাঃ জুবাইদা রহমান এদেশের সফল রাষ্ট্রনায়ক, স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ জিয়াউর রহমান বীর উত্তম ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার পুত্রবধু। তিনি নৌবাহিনীর প্রধান রিয়ার এডমিরাল মাহবুব আলী খান এর দ্বিতীয় সন্তান। এরূপ পারিবারিক ঐতিহ্যের পাশাপাশি তাঁর শিক্ষাগত ও পেশাগত যোগ্যতা সর্বজনবিদিত। তাঁর মতো একজন সম্মানিত ও সজ্জ্বন ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা চালু রেখে তাকে-সহ জিয়া পরিবারকে হেয় করা সরকারের গভীর চক্রান্তের অংশ।

তিনি বলেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে অপবাদ দেয়ার জন্য সরকার এই নোংরা খেলা মঞ্চায়িত করেছে। গত সপ্তাহে প্রকাশিত যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের মানবাধিকার প্রতিবেদনেও বলা হয়েছে, বিচার বিভাগ সরকারের হাতে থাকায় বেগম খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে সাজা দেয়া হয়েছে। ডাঃ জুবাইদা রহমানের আপিল আবেদন খারিজও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। মিডনাইট সরকার তার অপকর্মকে ঢাকার জন্য বিভিন্ন ইস্যুর অবতারণা করে এবং তারই অংশ হিসেবে ডাঃ জুবাইদা রহমানের মতো একজন নির্দোষ-নিষ্কলুষ ব্যক্তিত্বকে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিচারিক কার্যক্রম চালাচ্ছে।

এসময় তিনি ডাক্তার সমাজের পক্ষ থেকে ডাঃ জুবাইদা রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে