টাচ নিউজ ডেস্ক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবীমা ও জীবনবীমা প্রকল্পের আওতায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে  কর্তৃপক্ষ। বাৎসরিক ২৭০ টাকা প্রিমিয়াম দিয়ে এখন থেকে শিক্ষার্থীরা তালিকাভুক্ত বিভিন্ন হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণের সুযোগ পাবেন।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

বীমা সংক্রান্ত কাজের জন্য শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ বিভাগ/ইনস্টিটিউটের অফিসে যোগাযোগ করতে হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে। তবে কোনো শিক্ষার্থীর বয়সসীমা ২৮ বছর অতিক্রম করলে কিংবা ছাত্রত্ব হারালে বীমা সুবিধা পাওয়া যাবে না।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রতিবছর ভর্তির সময় শিক্ষার্থীদের এককালীন বাৎসরিক মাত্র ২৭০ টাকা প্রিমিয়াম দিতে হবে। এছাড়া চলমান শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা, যারা ভর্তির সমবার্ষিক প্রিমিয়ামের টাকা দিতে পারেননি, তারা (https://student.eis.du.ac.bd) ওয়েবসাইটে লগ ইনের মাধ্যমে হেলথ ইনস্যুরেন্স বাটন ক্লিক করে প্রিমিয়ামের টাকা জমা দিতে পারবেন। টাকা জমা দেওয়ার পর শিক্ষার্থীরা বীমা প্রিমিয়ামের একটি জমা রশিদ পাবেন। বীমা সুবিধা দাবির ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের সঙ্গে প্রিমিয়াম জমা রশিদ সংযুক্ত করতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, প্রত্যেক শিক্ষার্থী হাসপাতালে ভর্তির ক্ষেত্রে বার্ষিক সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা বীমা সুবিধা পাবেন। এর মধ্যে হাসপাতালে থাকাকালীন কেবিন/ওয়ার্ড ভাড়া, হাসপাতাল সেবা, অস্ত্রোপচারজনিত ব্যয়, চিকিৎসকের পরামর্শ ফি, ওষুধ ও পরীক্ষা-নিরীক্ষার বিল বাবদ দৈনিক সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা চিকিৎসা ব্যয় পাওয়া যাবে।

এছাড়া বহির্বিভাগে চিকিৎসা নেওয়ার ক্ষেত্রে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর জন্য বার্ষিক ১০ হাজার টাকা বরাদ্দ থাকবে। এই প্রসঙ্গে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বহির্বিভাগ চিকিৎসার ক্ষেত্রে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর জন্য বার্ষিক ১০ হাজার টাকা বরাদ্দ রয়েছে। এর মধ্যে বহির্বিভাগ পরীক্ষা-নিরীক্ষার ব্যয় অর্ন্তভুক্ত থাকবে এবং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ ফি বাবদ প্রতি ব্যবস্থাপত্রে সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা পাওয়া যাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে