টাচ নিউজ ডেস্ক: ভবিষ্যতে কখনও শান্তি আলোচনা পুনরায় শুরু করতে চাইলে আফগানিস্তানের জঙ্গি সংগঠন তালেবানের দরজা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জন্য খোলা থাকবে।

সংবাদ মাধ্যম বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সংগঠনটির প্রধান মধ্যস্থতাকারী শের মোহাম্মদ আব্বাস স্টানিকজাই একথা জানিয়েছেন।

আফগানিস্তানে ১৮ বছর ধরে চলা যুদ্ধ বন্ধের লক্ষ্যে ‘শান্তি আলোচনা’র জন্য তালেবানের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্টের হতে যাওয়া একটি বৈঠক বাতিলের সপ্তাহখানেক পর তালেবানের পক্ষ থেকে এমন বার্তা এলো। ওই সময় ট্রাম্প আলোচনাকে ‘মৃত’ বলে ঘোষণা দেন।

বিবিসি বলছে, কাবুলের একটি কূটনৈতিক এলাকায় হামলায় মার্কিন সেনাসহ ১২ জন নিহত হন। ওই হামলার দায় স্বীকার করে তালেবান। তালেবানের পক্ষ থেকে দায় স্বীকার করার পরই প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাদের সঙ্গে বৈঠক বাতিলের ঘোষণা দেন।

বৈঠক বাতিলের ঘোষণার প্রতিক্রিয়ায় তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হয়, আমেরিকা এজন্য অনেক কিছু হারাবে। সাক্ষাৎকারে আব্বাস এবার জানিয়েছেন তালেবান ভুল কিছু করেনি।

তালেবানের প্রধান মধ্যস্থতাকারী বলেন, আমেরিকার ঘোষণা অনযায়ী তারা হাজার হাজার তালেবানকে হত্যা করেছে। এই সময়ের মধ্যে যদি তালেবান তাদের একজন সৈন্যকে হত্যা করে সেখানে প্রতিক্রিয়া দেখানোর কিছু নেই। কারণ দুই পক্ষের মধ্যে কোনও যুদ্ধবিরতি চুক্তি নেই।

তিনি বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে আলোচনার জন্য দরজা খোলা আছে। আমাদের আশা অন্যরাও আলাপ-আলোচনার জন্য পুনরায় চিন্তা করবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে