টাচ নিউজ ডেস্ক: জাপানে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) জাপান শাখা উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস ২০২১ পালিত হয়েছে।

রোববার (৭ নভেম্বর) দিবসটি উপলক্ষ্যে টোকিওর কিতা সিটি অজি হোকু তোপিয়া স্কাই হলে এক আলোচনা সভার আয়োজন করে সংগঠনটি।

সভায় ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ।

ভার্চুয়ালি আয়োজনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি কেন্দ্রীয় নেতা বাবু গয়েশ্বর রায়, ইকবাল মাহমুদ টুকু, হাবিবুর রহমান হাবিব, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, এহসানুল হক মিলন, জাপান বিএনপি’র সাবেক সভাপতি খান মনি এবং যুক্ত্রারাজ্য বিএনপি’র সভাপতি এম এ মালেক, সুইডেন বিএনপির উপদেষ্টা মহিউদ্দিন আহম্মেদ ঝিন্টু।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জাপান শাখা বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্জ্ব নুর এ আলম নুর আলী।

এ সময় মঞ্চে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রধান উপদেস্টা এমডি এস ইসলাম নান্নু, সহ সভাপতি এমদাদুল হক মনি, যুগ্ম সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ডিও, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম রনি, বিএনপি কানাগাওয়া শাখার সভাপতি আফতাব উদ্দিন বেপারী এবং সাধারন সম্পাদক কামরুল হাসান পল। সভাটি পরিচালনা করেন সহ সাংগঠনিক সম্পাদক নূর খান রনি।

পবিত্র কোরআন তেলোয়াতের মধ্য দিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়। কোরআন তেলোয়াত করেন নাজমুল হোসেন ।

এরপর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)’র প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান (বীর উত্তম), করোনায় নিহতদের সহ স্বাধিকার আন্দোলনে নিহত এবং মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সকলের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, জাপান বিএনপি এর সভাপতি নূরে আলম নূরালী, জাপান বিএনপির প্রধান উপদেস্টা এমডি এস ইসলাম নান্নু, সহ সভাপতি এমদাদুল হক মনি, যুগ্ম সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ডিও, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম রনি, বিএনপি কানাগাওয়া শাখার সভাপতি আফতাব উদ্দিন বেপারী এবং সাধারন সম্পাদক কামরুল হাসান পল ও শেখ মাকসুদ। সেচ্ছাসেবক দলের ভবিৎষত সভাপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান জনি, ভবিৎষত সাধারন সম্পাদক ওমর ফারুক রিপন, নুরুল খান। যুবদল এর নজরুল ইসলাম রাজীব, আবুল খায়ের ভূঁইয়া , ছাত্রদল এর সেলিম আহমেদ মোল্লা প্রমুখ।

আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তারা বলেন, বিএনপি রাজনৈতিক চর্চার একটি বি প্লাটফর্ম। এখানে যোগ্যতা অনুযায়ী নেতৃত্ব তৈরি হবে। কর্মীরাই তাদের যোগ্য নেতা বেছে নিবে । নেতা হয়ে কেহ বসে পড়তে পারবে পারবে না এবং একই পদে দীর্ঘ দিন থাকতেও পারবে না।

তারা আরো বলেন, দেশের এই ক্রান্তি লগ্নে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর অভাব খুব বেশী অনুভব করছি । দেশের প্রয়োজনে দুই দুই বার ১৯৭১ এবং ১৯৭৫ এ ক্রান্তিকালে শহীদ জিয়া দক্ষ নাবিকের ন্যায় হাল ধরে বিশ্ব দরবারে স্বনির্ভর বাংলাদেশকে পরিচিত করান। আজ দেশের এই ক্রান্তিকালে তাই মহান এই নেতার অভাব জনগণ উপলব্দি করছে ।
আর এই অভাবটা পুরন করতে পারেন, বাংলাদেশের মানুষের একমাত্র আশা আকাঙ্ক্ষার ভরসা, তারুণ্যের প্রতীক তারেক জিয়া । ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনের মাধ্যমে বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকার হটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে এই হউক আজকের দিনের একমাত্র শপথ ।

সভা চলাকালীন ভার্চুয়াল এর মাধ্যমে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল এক বাণী দেন । বাণীতে মির্জা ফখরুল বলেন, মহান এই দিনে আমি জাপান প্রবাসী সবাইকে আহ্বান জানাই, যে চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ১৯৭৫ সালে আমরা স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলাম, সেই একই চেতনাকে ধারণ করে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও দেশের স্বাধীনতা রক্ষায় আবার সুদৃঢ় জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। বর্তমান অবৈধ সরকারের চরম প্রতিহিংসার শিকার দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দী রেখে দেশকে আবারো স্বাধীনতা পরবর্তীকালের মতো পরিস্থিতির মুখোমুখি করতে যে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে, তা থেকে উত্তরণে দল-মত নির্বিশেষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজপথে নেমে আসতে হবে।

বক্তব্যে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ জাপান বিএনপি ঘরোনার সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে জাপান বিএনপিকে একতাবদ্ধ হয়ে কাজ করার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে