টাচ নিউজ ডেস্ক: মহাখালীতে বাসের ‘হাফপাস’ ভাড়ার দাবিতে রাস্তায় নামা শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটছে। এ ঘটনায় কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

বুধবার (১৭ নভেম্বর) মহাখালী তিতুমীর কলেজের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, তারা রাস্তায় অবস্থান করার ১০-১৫ মিনিট পর তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের প্রায় ৪০ জন কর্মী তাদের ওপর হামলা করেন। হামলাকারীরা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের (সাবেক) ভিপি নুরের (নুরুল হক নুর) লোক ও বহিরাগত বলে মারধোর করেন।

ট্রাফিক পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তিতুমীর কলেজের সামনে ও এর আশপাশের এলাকায় সাধারণ শিক্ষার্থীরা বেলা ১১টার দিকে বাসে শিক্ষার্থীদের হাফপাস ভাড়ার দাবিতে আন্দোলন করছিলেন। শিক্ষার্থীদের অবরোধে রাস্তায় যানচলা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। এরই মধ্যে শিক্ষার্থীদের আরেকটি গ্রুপ আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে। পরে দুই পক্ষই পুলিশ আসার আগে ঘটনাস্থল ছেড়ে চলে যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডিএমপির ট্রাফিক গুলশান বিভাগের মহাখালী জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) আশফাক আহমেদ ঢাকা পোস্টকে বলেন, তিতুমীর কলেজ ও আশপাশের আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা বাসে হাফপাস ভাড়ার দাবিতে বেলা এগারটার দিকে আন্দোলন করছিলেন। রাস্তা অবরোধ করে তারা এ আন্দোলন করছিলেন। এ সময় শিক্ষার্থীদের আরেকটা গ্রুপের সঙ্গে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ঝামেলা হয়। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে টিম পাঠাই। কিন্তু টিম পৌঁছার আগেই শিক্ষার্থীরা ঘটনাস্থল ছেড়ে চলে যায়। এখন যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

এ বিষয়ে বনানী থানার অফিসার ইনচার্জ নুরে আজম মিয়া ঢাকা পোস্টকে বলেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলন এবং তাদের ওপর হামলার বিষয়টি আমদের জানা নেই।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে