টাচ নিউজ ডেস্ক: চীনের ফুজিয়ান প্রদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলে দেওয়ার পর আবারও বেড়েছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। শিক্ষার্থীর বাবার কোভিড হওয়ার মধ্য দিয়েই ছড়িয়েছে সংক্রমণ বলে ধারণা করা হচ্ছে। এরপর আবার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে স্কুল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

প্রতিবেদনেটিতে বলা হয়েছে, ৪ দিনের মধ্যে ফুজিয়ানে ১০০ জনের বেশি মানুষ কোভিড আক্রান্ত হয়েছে। ফুজিয়ানের পুতিয়ান শহরেও সংক্রমণ ছড়াতে শুরু করে। এই শহরে প্রায় ৩০ লাখ মানুষের বসবাস। আশঙ্কা করা হচ্ছে, উহান ও নানজিংয়ের মতো ভুগতে পারে পুতিয়ান শহরও। ফুজিয়ান কর্তৃপক্ষ সেখানকার সব শিক্ষার্থী ও শিক্ষককে এক সপ্তাহের মধ্যে কোভিড পরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছে।

অন্যদিকে, যে শিশুটির বাবা কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন তিনি ৩৮ দিন আগে ৪ আগস্ট সিঙ্গাপুর থেকে ফেছেন। ১০ সেপ্টেম্বর কোভিড পরীক্ষায় তার করোনাভাইরাস পজিটিভ ফল আসে। যদিও সিঙ্গাপুর থেকে ফেরার পর তিনি ২১ দিন কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। ইতোমধ্যে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সেখানকার সব স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

পুতিয়ানবাসীর চলাচলের ওপরও নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হয়েছে। কারও পুতিয়ানের বাইরে যেতে হলে করোনাভাইরাস নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে। এ ছাড়া পুতিয়ানের সিনেমা হল, জাদুঘর, লাইব্রেরি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে