টাচ নিউজ ডেস্কঃ দেশের সাহায্য বন্ধ করে লেখা বিএনপি মহাসচিবের চিঠির জন্য তার বিচার হওয়া দরকার বলে মনে করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘তারা দেশের সাহায্য বন্ধের জন্য চিঠি লিখেছে। এটা যদি ইউরোপের কোনো দেশে হতো, তাৎক্ষণিক মির্জা ফখরুল ও বিএনপির বিরুদ্ধে মামলা হতো। তিনি রাজনীতিতে অযোগ্য হতেন। তার বিচার হতো।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমি নিজেও মনে করি, এই যে দেশের বিরুদ্ধে তিনি চিঠি দিলেন, সাহায্য বন্ধের কথা বললেন, এটার জন্য তার বিচার হওয়া দরকার, বিএনপিরও বিচার দরকার।’

তিনি বলেন, ‘সবকিছুতেই যখন না বলার যে বাতিক, এটি থেকে বিএনপি বের হতে না পারলে তারা যে কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে জানি না। নির্বাচন কখনো সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত হয় না। নির্বাচনের সময় সরকার একজন কনস্টেবলও বদলি করতে পারে না। তখন সবার চাকরি নির্বাচন কমিশনের অধীনে হয়ে যায়। মূল কথা হচ্ছে, বিএনপির তো সরকারের প্রতি কোনো আস্থা নেই।

তিনি আরও বলেন, ‘সবকিছু নেগলেট করার তারা যে পদ্ধতি বেছে নিয়েছে, সেটিই তারা অব্যাহত রেখেছে। মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে জল ঘোলা করে কোনো কিছু করা যায় কি না, সেটাই তারা করে যাচ্ছেন।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে