আনিছ আহম্মদ হানিফ, চাটখিল উপজেলা প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার বদলকোট ইউনিয়নে অপহরণের ১০ দিন পর এক শিশুর বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় শাহাদাত হোসেন নামে একজনকে (২২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার (৩ এপ্রিল) দুপুরে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম।এর আগে শনিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে মেঘা গ্রাম থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতার শাহাদাত হোসেন মেঘা গ্রামের বাবুলের ছেলে।সে নিহতের চাচাতো ভাই।জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম জানান,গত ২৪ মার্চ (বৃহস্পতিবার) দুপুরের দিকে শিশুটি নিখোঁজ হয়।তাকে না পেয়ে পরের দিন চাটখিল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন ওই শিশুর বাবা।এরপর পুলিশ ও স্থানীয়রা বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেও ওই শিশুর সন্ধান পায়নি। ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে শাহাদাতের গতিবিধি ও আচার-আচারণ সন্দেহজনক হওয়ায় তাকে নজরদারিতে রাখে পুলিশ।

এর সূত্র ধরে শনিবার শাহাদাতকে আটক করা হয়।পরে জিজ্ঞাসাবাদে সে শিশুটিকে অপহরণের পর ধর্ষণ করেছে বলে স্বীকার করে। এরপর শ্বাসরোধ করে হত্যা করে মরদেহ বস্তাবন্দি করে লাশ গুমের উদ্দেশ্যে টয়লেটের সেফটি ট্যাংকির ভিতর ফেলে দেয় সে। পুলিশ সুপার আরও জানান, নিহতের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতার আসামিকে রোববার দুপুরে আদালতের পাঠানো হয়েছে।

আদালতে ১৬৪ ধারায় তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড শেষে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হবে।এ ঘটনায় তার সঙ্গে অন্য কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে