আনিছ আহম্মদ হানিফ, চাটখিল উপজেলা প্রতিনিধিঃ চাটখিল উপজেলায়  হাটপুকুরিয়া-ঘাটলাবাগ ইউনিয়নের বক্তারপুর হাজি বাড়ির দলিল লেখক মো. শফিক উল্লাহ পাটোয়ারী (৭৫) অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে তার কাছে থাকা সর্বস্ব খুইয়েছেন, বর্তমানে তিনি নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে মমূর্ষ অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বয়োবৃদ্ধ শফিক উল্লাহ নোয়াখলা মোল্লারহাট খোলায় নবনির্মিত মসজিদের ক্যাশিয়ার। মসজিদের নির্মাণ কাজের জন্য চাটখিল ইসলামী ব্যাংক থেকে টাকা তুলতে বুধবার (৩০মার্চ) সকালে চাটখিল আসেন। পরে ব্যাংক থেকে ৮২ হাজার ৪ শত টাকা উত্তোলন করেন তিনি। ব্যাংক থেকে বের হলে অজ্ঞাতনামা দুই ব্যক্তি কৌশলে বয়োবৃদ্ধ শফিক উল্লাহকে হালিমা দিঘীরপাড় নিয়ে যায়।

সেখানে এক হোটেলে বসে তিনি সহ অজ্ঞাতনামা ঐ ব্যক্তিদ্বয় জুস পান করে। জুস পান শেষে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা চলে গেলেও বয়োবৃদ্ধ শফিক উল্লাহ কিছুক্ষণ বসে থাকেন এবং এক পর্যায়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে অবস্থার অবনতি দেখে চিকিৎসক তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।

বয়োবৃদ্ধ শফিক উল্লাহর মেয়ে জানান, তার বাবা ব্যাংক থেকে টাকা তুলে তার স্বামীর বাড়ি চাটখিল পৌরসভার ছয়ানী টবগায় যাওয়ার কথা ছিলো কিন্তু যথা সময়ে তিনি না যাওয়াতে বাবার মোবাইলে বারবার ফোন দিলেও কেউ রিসিভ করে নাই। অনেকক্ষণ ফোন দেওয়ার পর অপরিচিত একজন জানিয়েছেন বাবা অজ্ঞান হয়ে রাস্তায় পড়ে আছে দেখে তারা ওনাকে উদ্ধার করে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে