টাচ নিউজ ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় একটি চা ও মুদির দোকানে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আগুনে দগ্ধ হয়ে দুই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত দুই যুবক সম্পর্কে আপন চাচা-ভাতিজা। বুধবার ভোরে উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের কাচারীপাড়া মসজিদ সংলগ্ন শাহ আলম মিয়ার দোকানে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর থেকে নিহতদের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নবীনগর সার্কেল মোঃ মেহেদী হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। নিশ্চিত হওয়ার জন্য ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।
নিহতরা হলেন শ্রীরামপুরের হাজী বাচ্চু মিয়ার ছেলে আলমগীর (১৯) ও তার ভাই শাহ আলম মিয়ার ছেলে বাবু মিয়া (১৮)।

স্থানীয়রা জানান, এক সাথে থাকা মুদি ও চায়ের দোকানের যৌথ মালিক শাহ আলম ও হাজী বাচ্চু মিয়া। সারা দিন বেচাকেনা করে রাত ৯টার দিকে বাড়ি থেকে খাওয়া দাওয়া করে দুই চাচা ভাতিজা এক সাথে দোকানে ঘুমিয়ে ছিলেন। গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অগ্নিকান্ডের সময় বাবু ও আলমগীর দোকানের ভিতর ছিল।

“আগুন দেখে মসজিদের ইমাম মাইকে আগুন লাগার ঘটনা জানালে স্থানীয়রা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু ততক্ষণে দোকান দুটি পুড়ে ছাই হয়ে যায় এবং আলমগীর ও বাবু দগ্ধ হয়। পুরে যাওয়া তাদের দেহের বিভিন্ন অঙ্গ প্রতঙ্গ ঘটনাস্থলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পরে রয়েছে। লাশ উদ্ধার ময়নাতদন্তের জন্য নবীনগর থানায় আনা হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের বাড়ি গিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত- উদ- দৌলা খাঁনের পক্ষ হতে প্রত্যেক পরিবার কে নগদ ২৫,০০০/- টাকা করে আর্থিক অনুদান প্রদান করেন নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পিআইও মিজানুর রহমান ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে