টাচ নিউজ ডেস্কঃ যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিকল হওয়া শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের ফেরি বেগম রোকেয়া আবার চলাচল শুরু করেছে। মেরামত শেষে চার ঘণ্টা পর বুধবার (২৭ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে যাত্রী পারাপার শুরু করে ফেরিটি।

এর আগে সকাল ৯টার দিকে বিকল হয়ে গেলে মিনি রোরো ফেরিটি দিয়ে যানবাহন ও যাত্রী পারাপার বন্ধ হয়ে যায়। মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) বহরে যুক্ত করা হয় ফেরিটি।

বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের টার্মিনাল সুপারিনটেনডেন্ট আল ফয়সাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ফেরি বেগম রোকেয়া এখন সচল রয়েছে। দুপুর ১টার দিকে যাত্রীর পাশাপাশি বেশ কিছু মোটরসাইকেল ও ৩৬টি হালকা যানবাহন নিয়ে ফেরিটি ঘাট থেকে ছেড়ে যায়।

বেগম রোকেয়াসহ দুটি মিনি রোরো, দুটি কেটাইপ ও দুটি ডাম্পসহ নৌরুটে আটটি ফেরি সচল রয়েছে বলেও জানান শিমুলিয়া ঘাটের এ কর্মকর্তা।

এদিকে ঈদকে কেন্দ্র করে বুধবার ভোর থেকে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো মানুষ ও যানবাহনের চাপ বেড়েছে কয়েকগুণ। তবে দুপুরে চাপ অনেকটা কমে আসে।

শিমুলিয়া ঘাটের সহ-মহাব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) শফিকুল ইসলাম জানান, বর্তমানে ৮টি ফেরি সচল রয়েছে। ২৯ এপ্রিলের মধ্যে আরও দুটি ফেরি আসার কথা রয়েছে। তখন এই বহরে ১০টি ফেরি চলাচল করবে।

তিনি আরও বলেন, বিআইডব্লিউটিএ, বিআইডব্লিউটিসি, পদ্মাসেতু কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্টদের মধ্যে একটি আলোচনা হয়েছে। রাতের বেলাও শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল করতে পারবে।

বিআইডব্লিউটিএ শিমুলিয়া নদীবন্দরের নৌনিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের পরিদর্শক মো. সোলেইমান জানান, নৌরুটে আজ আরও তিনটি লঞ্চ কমেছে। ফেরির পাশাপাশি দুই নৌরুটে ৮০টি লঞ্চ ও ১৫৩টি স্পিডবোট সচল রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে