টাচ নিউজ ডেস্কঃ বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় ঘুমন্ত শাশুড়িকে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাত করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে পুত্রবধূর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত পুত্রবধূ লাবন্য আক্তারকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (১১ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের কাঠালিয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত শাশুড়ি নাজনীন বেগম (৫০) ওই এলাকার মৃত হানিফ হাওলাদারের স্ত্রী।

নিহতের স্বজনরা জানান, গত বুধবার রাতে ছেলে উজ্জলের ফোন ধরছিল না মা নাজনীন বেগম। এ কারণে ছেলে এক নিকট আত্মীয়কে বাসায় গিয়ে খোঁজ নিতে বলেন। কালাম হাওলাদার ণামে ওই আত্মীয় ওই বাড়ি গিয়ে দেখেন সামনের দরজা আটকানো। পেছনের খোলা দরজা দিয়ে ঘরে ঘুকে চৌকির পাশে মশারীতে পেঁচানো রক্তাক্ত অবস্থায় নাজনীন বেগমের নিথর দেহ দেখতে পান তিনি। এসময় তিনি ফোনে বিষয়টি পুলিশকে জানান।

স্থানীয়রা জানায়, ওই গ্রামের উজ্জ্বল হাওলাদারের স্ত্রী লাবন্য আক্তার শাশুড়ির সাথে গ্রামের বাড়িতে থাকতো। উজ্জ্বল ও তার ছোট ভাই রাজু হাওলাদার জীবিকার প্রয়োজন ঢাকায় থাকেন। ঈদ শেষে দুই ভাই গত ১০ মে ঢাকায় ফিরে যায়।
বাকেরগঞ্জ থানার ওসি মো. আলাউদ্দিন জানান, স্থানীয়দের অভিযোগে ভিত্তিতে অভিযুক্ত গৃহবধূকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ চৌকির উপর মশারীর মধ্যে রক্তাত্ব ওই নারীর লাশ উদ্ধার করেছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে রান্নার কাজে ব্যবহৃত ছুরি দিয়ে উপর্যপুরি কুপিয়ে ওই নারীকে হত্যা করা হয়েছে। আটক গৃহবধূ এই হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরসহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে