টাচ নিউজ ডেস্কঃ খুলনার বটিয়াঘাটায় ঘরে ঢুকে হাত-পা বেঁধে দুই বোনকে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণের ঘটনায় তিন জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রোববার (১৫ মে) রাতে খুলনার বিভিন্ন স্থানে র‌্যাব ও পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তার তিন জন হলেন, প্রধান অভিযুক্ত মুজাহিদ, আজিজুল ও নাঈম।

সোমবার (১৬ মে) র‌্যাব-৬ এর পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মোস্তাক আহমেদ জানান, আজ দুপুরে র‌্যাব-৬ এর সদর দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

গত ১৪ মে মধ্যরাতে ফুলতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তবে ১৫ মে রাতে তাদের খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বিষয়টি জানাজানি হয়।

ধর্ষণের শিকার দুজনের মধ্যে একজন ১৩ বছর বয়সী স্কুলছাত্রী। অন্যজন ২৪ বছর বয়সী। তারা দুজন খালাতো বোন। ২৪ বছর বয়সী নারীর ২২ মাস বয়সী একটি সন্তান রয়েছে। তবে স্বামীর সঙ্গে বর্তমানে তার কোনো সম্পর্ক নেই।

স্কুলছাত্রীর মা জানান, শনিবার বিকেলে তিনি বোনের বাড়ি ডুমুরিয়া যান। তার স্বামী চিকিৎসার জন্য বাগেরহাটে গিয়েছিলেন। এসময় দুই বোন বাড়িতে ছিলো। মধ্যরাতে ৭ যুবক তাদের বাড়িতে যায়। সেখান থেকে কয়েকজন ঘরে গিয়ে দুই বোনের হাত ও মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে। এ সময় আরও কয়েকজন ঘরের বাইরে পাহারায় ছিলো। পরে ভোর রাতে তার মেয়ে তাকে ফোন করে ঘটনাটি জানায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে