গ্রীষ্ম- প্রীতি
তাহমিনা সুলতানা

পাতা ঝরার এমন দিন ভালো লাগে না-
নগ্ন ডালের বিরোহ টানে না আমায়।
হেমন্তের পাটাতনে কুহকী ধুম্রজাল বিছিয়ে
মন কেবলই গ্রীষ্ম -শ্যাকা বাঁশি বাজায়।

জানালার ওপাশে ঝরে পড়ে বিবর্ণ পাতা-
টুপটাপ বৃষ্টির মতো। ক্রমশ নীরব শূন্যতা !
পাখির শূন্য নীড়ে বিকেলের তীর্যক রশ্মি-
স্মৃতি ঘরে এখনো প্রস্ফুটিত রোদ-ফাটা মগ্নতা।

ফিরে যেতে চাই পাহাড়িয়া একই ধ্যানে –
ফিরে পেতে চাই গ্রীষ্ম, তুমুল সেই দহন।
নদীর উছলে পরা অহংকার ছিল তখন
সময় কি ফিরিয়ে দেবে আগুনের কথন?

গ্রীষ্ম- দুপুর আজন্ম তৃষ্ণায় জন্ম দিক-
তামাটে অসহ্য সুখ, মায়া রোদের।
আবার নোনা জলের ঢেউ হতে চাই –
তোমার তীক্ষ্ণ ঐ দু’টি কালো চোখের।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে