টাচ নিউজ ডেস্কঃ গাজা সীমান্তে ৬৫ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে লোহার প্রাচীর তৈরির কাজ সম্পন্ন করেছে ইসরায়েল। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) প্রাচীর নির্মাণের কাজের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

ইসরায়েলের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আয়েলেত শাকেদ জানান, গাজার সীমানায় দেওয়াল তৈরির কাজ শেষ হয়েছে। তার মতে, এবার দক্ষিণ ইসরায়েলের মানুষ সুরক্ষিত থাকবেন।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য, শুধু মাটির ওপর নয়, মাটির নিচেও প্রাচীর তৈরি করা হয়েছে। এর সঙ্গে লাগানো হয়েছে সেন্সর। প্রাচীরের কাছেই তৈরি করা হয়েছে কন্ট্রোলরুম।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বেনি গানৎজ বলেন, প্রাচীর নির্মাণ করায় নাগরিকরা নিরাপদে থাকবেন। এই প্রাচীর নির্মাণে ব্যবহার করা হয়েছে, দুই লাখ ২০ হাজার ট্রাক কংক্রিট এবং এক লাখ ৪০ হাজার টন লোহা ও স্টিল।

গানৎজ বলেন, লোহার এই ৬৫ কিলোমিটার (৪০ মাইল) প্রাচীর ‘সন্ত্রাসী’ গোষ্ঠীর হাত থেকে দক্ষিণের মানুষকে সুরক্ষিত রাখবে।

তবে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এটি স্পষ্ট করেনি যে, প্রাচীর কতটা গভীর করা হয়েছে। ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসকে মোকাবিলায় ২০১৬ সালে সীমান্তে এই প্রাচীর তৈরি ঘোষণা দেয় ইসরায়েল। হামাসকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে আখ্যায়িত করে ইসরায়েল, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং যুক্তরাষ্ট্র।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে