টাচ নিউজ ডেস্ক: কুমিল্লায় জাতীয় শ্রমিক লীগের তিতাস উপজেলা শাখার মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মৌসুমী আক্তারকে ছিনতাই মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে তিতাস উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আল-আমিন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে তাকে দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

মৌসুমী তিতাস উপজেলার জিয়ারকান্দি এলাকার রুবেল মিয়ার স্ত্রী।

মামলার সূত্রে জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) কুমিল্লার হোমনা উপজেলার শ্রীমদ্দি গ্রামের মো. মনু মিয়ার মেয়ে শারমিন সোনালী ব্যাংক হোমনা বাজার শাখায় টাকা জমা দিতে যায়। ব্যাংকে ভীড় থাকায় টাকা জমা না দিয়ে তিনি বাড়িতে ফিরছিলেন। পথে হোমনা বাজারের অভিযুক্ত মৌসুমীসহ ৪ সহযোগী শারমিনের ব্যাগ থেকে ১ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ সময় শারমিনের চিৎকারে উপস্থিত লোকজন তিন নারী ছিনতাইকারীকে আটক করে। তবে এ সময় মৌসুমী পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে কৌশলে যোগাযোগ করে ১ লাখ টাকার মধ্যে ৮০ হাজার টাকা দিলেই আটকদের ছেড়ে দেয়া হবে এমন প্রলোভন দিলে তিতাস শ্রমিক লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মৌসুমী ৮০ হাজার টাকা নিয়ে ঘটনাস্থলে যায়। এরপর স্থানীয়রা তাকেসহ এই চার নারী ছিনতাইকারীকে আটকে রেখে থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

হোমনা থানার ওসি মো. আবুল কায়েস আকন্দ জানান, ভোক্তভোগী মনু মিয়া বাদী হয়ে মামলা দায়ের পর প্রাথমিক তদন্ত করে শ্রমিক লীগ নেত্রী মৌসুমীসহ চার নারীর সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাই এ ঘটনায় মৌসুমী (২৫), হাছিনা আক্তার (২৬), আঁখি সরকার (২০) ও শিউলীকে (২০) আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তিতাস উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আল-আমিন বলেন, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও অবৈধ অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকায় উত্তর জেলা শ্রমিক লীগ নেতৃবৃন্দের নির্দেশ ক্রমে মৌসুমীকে দল থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে