টাচ নিউজ ডেস্কঃ ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ শহর জুড়ে কারফিউ জারি করা হয়েছে, যা সোমবার সকাল পর্যন্ত বহাল থাকবে।

কিয়েভ মেয়র জানিয়েছে, ইউক্রেনের রাস্তায় কাউকে দেখা গেলে তাকে রাশিয়ার বাহিনী বা ‘শত্রু’ হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

এর আগে একটি ঘোষণায় জানানো হয়, কারিফউ জারি থাকবে প্রতিদিন স্থানীয় সময় বিকেল পাঁচটা থেকে সকাল আটটা পর্যন্ত। মেয়রের দপ্তর থেকে এরপর কারফিউ-এর হালের এই মেয়াদ ব্যাখ্যা করা হয়।

বলা হয় যে কারফিউ বর্তমানে আছে, তা সোমবার স্থানীয় সময় সকাল আটটার আগে উঠবে না।

রাশিয়ার হামলা শুরুর পর ইউক্রেনের রাজধানীর অনেক বাসিন্দা মাটির নিচের ঘরে আশ্রয় নিয়েছেন। দেশটিতে সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত কারফিউ জারি রয়েছে।

এদিকে কারফিউ জারির পর ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলায় রাজধানী কিয়েভের ৪০ কিলোমিটারের দক্ষিণে ভাসিলকিভে একটি তেলের ডিপোতে আগুন ধরেছে। রুশ ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় এ আগুন লেগেছে।

রোববার বিবিসি ও সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, কর্তৃপক্ষ রাজধানীবাসীকে বিষাক্ত ধোঁয়ার ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বলেছে।

কিয়েভের বাসিন্দাদেরকে ঘরের জানালা ভালো করে বন্ধ রাখতে বলেছে কর্তৃপক্ষ।

রুশ হামলার তৃতীয় রাতে কিয়েভে বিমান হামলার সাইরেন বেজে উঠে। মধ্যেরাতের আগে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সতর্কতা দেওয়া হয়েছিল।

তেলের ডিপোতে আগুন লাগার ভিডিওতে দেখা গেছে, ব্যাপক পরিমাণ ধোঁয়া উদগিরণ হতে দেখা যাচ্ছে।

ইউক্রেনে মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে দেশ ছেড়েছেন ১ লাখ ২০ হাজারের বেশি মানুষ। বেশিরভাগ আশ্রয় নিয়েছেন পাশের দেশ পোল্যান্ডে। অনেকে এখনো নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে পায়ে হেঁটে চলেছেন সীমান্তের দিকে। সবশেষ ৪ ঘণ্টায় সীমান্ত পার হয়েছেন ১৫ হাজারের বেশি মানুষ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে