টাচ নিউজ ডেস্কঃ দক্ষিণ এশিয়ার ঘনবসতিপূর্ণ দেশ ভারতের নিয়ন্ত্রিত ভূস্বর্গ খ্যাত রাজ্য কাশ্মীরে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হামলায় ২ পুলিশ কর্মকর্তার প্রাণহানি ঘটেছে। ভয়াবহ এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১২ জন। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) রাজ্যের গ্রীষ্মকালীন রাজধানী শ্রীনগরে একটি পুলিশ বাসে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা আক্রমণ চালালে হতাহতের ঘটনাটি ঘটে।

মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, এর আগে সোমবার ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে কাশ্মীরে ২ বিচ্ছিন্নতাবাদী নিহত হয়েছিল। মূলত এর কয়েক ঘণ্টার মাথায় পাল্টা জবাব হিসেবে পুলিশ কর্মকর্তাদের হত্যা করা হলো।

ভারতীয় মিডিয়াগুলোর প্রতিবেদন অনুযায়ী- সোমবার কাশ্মীরের শ্রীনগরের বাইরে পাঠানচক এলাকার কাছে একটি পুলিশ ক্যাম্পের অদূরেই বাহিনীর সদস্যদের বহনকারী একটি বাস লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলিবর্ষণ শুরু করে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। স্থানীয় সূত্রের বরাতে বলা হয়, পুলিশ কর্মকর্তাদের বহনকারী বাসটির ছাদে উঠে এক বিচ্ছিন্নতাবাদী স্বয়ংক্রিয় রাইফেল থেকে গুলিবর্ষণ করে।

এতে ঘটনাস্থলেই দুই পুলিশ কর্মকর্তা প্রাণ হারান। আর আহত হন বাহিনীর আরও ১২ সদস্য। এদের মধ্যে কয়েক জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পরবর্তীকালে আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়।

এ দিকে নৃশংস এই ঘটনার পর গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে ভারতীয় নিরাপত্তারক্ষী বাহিনীর সদস্যরা। একই সঙ্গে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের ধরতে তল্লাশি অভিযানও শুরু হয়।

মিডিয়াগুলো বলছে, পাঠানচক এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর একাধিক ঘাঁটিসহ নানা সরকারি দফতর রয়েছে। কড়া নিরাপত্তার অধীনে থাকা এলাকাটিতে কিভাবে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা বিনা বাধায় আক্রমণ চালিয়ে পালিয়ে গেল, তা নিয়ে এরই মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে।

এছাড়া বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হামলায় নিহত পুলিশ কর্মকর্তাদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। একই সঙ্গে আক্রমণের ঘটনার বিস্তারিত তথ্য জানতে চেয়েছেন তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে