কলাপাড়া(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:
পটুয়াখালীর কলাপাড়ার ধুলাসার ইউনিয়নের নয়াকাটা গ্রামে বুধবার সকাল ৯টায় সময় ১৪ বছরের এক কিশোরীকে ঘরে একা পেয়ে নুর মিয়া ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।এ ঘটনায় পুলিশ প্রতিবেশী দুই সন্তানের জনক নুর মিয়াকে(৩৫) গ্রেপ্তার করেছে।
ধর্ষণের শিকার কিশোরী জানায়, ছোট ভাইকে নিয়ে তার মা ডাক্তারের কাছে যায়। সে ঘরে একা থাকার সুযোগে নুর মিয়া ঘরে প্রবেশ করে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। কিশোরী দৌড়ে এসে স্থানীয়দের এ ঘটনা জানালে নুর মিয়াকে তারা আটক করে ধুলাসার ইউনিয়ন পরিষদে আটকে রেখে মহিপুর থানা পুলিশকে খবর দেয়।
কিশোরীর মা জানায়, সে মেয়েকে একা রেখে ছোট ছেলেকে ডাক্তার দেখানোর জন্য বের হন। এসে শুনেন তার মেয়ের উপর নিযার্তন করা হয়েছে। তিঁনি এ ঘটনায় জড়িত নুর মিয়ার শাস্তির দাবি করেন।
মহিপুর থানার ওসি মো. সোহেল আহমেদ জানান, কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে নুর মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং কিশোরীকে উদ্ধার করে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে পাঠানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে