টাচ নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া করোনামুক্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রোববার (৯ মে) দুপুরে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘কিছুক্ষণ আগে হাসপাতাল থেকে খবর নিয়েছি। আল্লাহর অশেষ রহমতে তার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসছে।’

তিনি বলেন, ‘তার যেসব সমস্যা দেখা দিয়েছিল, সেই সমস্যাগুলো ক্রমান্বয়ে উন্নতির দিকে। কিন্তু এখনো তার মূল সমস্যা যেগুলো আছে, আপনারা জানেন তিনি অনেকগুলো অসুখে ভুগছেন দীর্ঘকাল থেকে এবং দীর্ঘকাল কারাভোগ ও চিকিৎসা না হওয়ার কারণে সেগুলো বেড়েছে, এগুলো বেশ সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সেজন্য মেডিকেলবোর্ড অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে সার্বক্ষণিক তার লক্ষ্য রাখছেন। তার চিকিৎসা করছেন। তারা অত্যন্ত উদ্বেগের সঙ্গে এই চিকিৎসা করছেন।’

বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, ‘আশার কথা হচ্ছে যে…উন্নত চিকিৎসাপদ্ধতিগুলো সিসিইউ ছাড়া অন্য কোথাও সম্ভব না। সিসিউয়ে যা যা দরকার সবকিছুই তারা করছেন। তারা কিছুক্ষণ আগে আমাকে যেটা বলেছেন, শি ইজ সাইন অফ প্রগ্রেস (তার উন্নতি দেখা যাচ্ছে)। এখন আল্লাহতালা তাকে যদি পরিপূর্ণভাবে সুস্থ করেন।’

এর আগে গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। তার বাসভবন ফিরোজার আরও আটজন ব্যক্তিগত স্টাফও আক্রান্ত হন। এরপর ২৪ এপ্রিল (শনিবার) তার দ্বিতীয় করোনা টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ আসার কথা জানান তার চিকিৎসক ডা. এফ এম সিদ্দিকী।

২৭ এপ্রিল আবার সিটি স্ক্যানসহ প্রয়োজনীয় কিছু পরীক্ষার জন্য খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়। সেই রাতেই তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে