টাচ নিউজ ডেস্কঃ পবিত্র ঈদুল ফিতরে ২৯ এপ্রিল থেকে ৪ মে পর্যন্ত টানা ছয় দিনের ছুটি পেতে যাচ্ছেন সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবীরা। ঈদে সরকারি ছুটি তিন দিনের হলেও ঈদের আগে সাপ্তাহিক ছুটি এবং মে দিবস এবার ঈদের ছুটি বাড়াবে।

আর কেউ যদি ‘৫ মে’ বৃহস্পতিবার ছুটি নিতে পারেন তাহলে তার ছুটি গিয়ে দাঁড়াবে ৯ দিনে।

মঙ্গলবার এ বছরের রমজানের সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ করেছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। তাদের সময়সূচি অনুযায়ী এ বছর রমজান শুরু হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ ৩ এপ্রিল। যদি রমজান মাস ৩০ দিনের হয় তাহলে ঈদ হবে ৩ মে মঙ্গলবার। সেক্ষেত্রে সরকারি ছুটি ২, ৩ ও ৪ মে। তার আগে ১ মে রোববার ‘মে দিবসে’র ছুটি। তার অগের দুদিন শুক্র-শনিবার। সুতরাং ঈদের ছুটি শুরু হবে ২৯ এপ্রিল শুক্রবার থেকে। শুক্র থেকে বুধ মোট ৬ দিন ছুটি পাবেন সবাই।

এছাড়া এই ৬ দিনের পরদিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার যদি কেউ ছুটি নেন তাহলে পরের শুক্র-শনিবারসহ মোট ৯ দিন ছুটি কাটাতে পারবেন তিনি।

তবে রমজান বা ঈদের চাঁদ যদি এক দিন আগে ওঠে তাহলে মূল ছুটি এক দিন কমে ৫ দিন হবে এবং ৯ দিনের সমীকরণ থাকবে না।

উল্লেখ্য, মুসলমানদের জন্য পবিত্র রমজান মাস অত্যন্ত সম্মানিত ও মর্যাদাপূর্ণ। রমজানে মুমিনরা পুরো মাস রোজা রাখেন। সব ধরনের গুনাহ ও অপরাধ থেকে দূরে থাকেন। এবারের ঘোষণাকৃত সময়সূচিতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সাহরির শেষ সময় সতর্কতামূলকভাবে সুবহে সাদিকের ৩ মিনিট আগে ধরা হয়েছে এবং ফজরের ওয়াক্ত শুরুর সময় সুবহে সাদিকের ৩ মিনিট পরে রাখা হয়েছে। অতএব, সাহরির সতর্কতামূলক শেষ সময়ের ৬ মিনিট পর আজান দিতে হবে। এছাড়া সূর্যাস্তের পর সতর্কতামূলকভাবে ৩ মিনিট বাড়িয়ে ইফতারের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে