টাচ নিউজ ডেস্ক: কক্সবাজারের উখিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) নামের একজন মারা গেছেন বলে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) জানিয়েছে।

গতকাল রোববার রাতে নিহত জাহাঙ্গীর আলম উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী জমিদারপাড়ার মৃত সৈয়দ আলমের ছেলে। জাহাঙ্গীর আলম একজন চিহ্নিত মাদক কারবারি। তার বিরুদ্ধে মাদকসহ ছয়টি মামলা আছে।

র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক (গণমাধ্যম) ফ্লাইট লে. নিয়াজ মোহাম্মদ চপল এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গতকাল রাতে উখিয়া উপজেলার বালুখালীর কাকড়া সেতু এলাকায় র্যাকব-৭-এর একটি বিশেষ দলের সঙ্গে মাদক কারবারিদের বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এ সময় তারা র্যাখব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি করলে র্যা।বও পাল্টা গুলি করে।

একপর্যায়ে মাদক কারবারিরা পালিয়ে যান। পরে ঘটনাস্থল থেকে জাহাঙ্গীরের গুলিবিদ্ধ লাশ এবং ৭০টি ইয়াবা, একটি ওয়ান শুটার গান ও কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

নিয়াজ মোহাম্মদ চপল জানান, ১১ নভেম্বর জাহাঙ্গীরের বড় ভাইকে ১ লাখ ১০ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়। তার কাছ থেকে মিয়ানমারের নগদ অর্থও পাওয়া যায়। পরে তার তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়।

লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে