টাচ নিউজ ডেস্ক: ইন্দোনেশিয়াভিত্তিক জঙ্গি গোষ্ঠী ইস্ট ইন্দোনেশিয়া মুজাহিদিনের (এমআইটি) শীর্ষ নেতা আলী কালোরা ও বাহিনীর অপর নেতা জাকা রমজান ওরফে ইকরিমা দেশটির আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ প্রাণ হারিয়েছে ।

ইন্দোনেশীয় পুলিশের পক্ষ থেকে পাঠানো বিবৃতির বরাতে করা প্রতিবেদনে এরই মধ্যে তথ্যটি নিশ্চিত করেছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

 শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিকালে দেশটির সুলাওয়েসি দ্বীপের একটি গ্রামে এমআইটির নেতা আলী কালোরা ও জাকা রমজানসহ ছয় জঙ্গির সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ হয়। এতে আলী ও রমজান প্রাণ হারালেও বাকি চারজন পালিয়ে যায়।

ওই গ্রামে এমআইটির আস্তানায় অভিযানটি পরিচালনা করেছে পুলিশ। অভিযানে সেই আস্তানা থেকে একটি এম ১৬ বন্দুক, দুটি চাপাতি, বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক ও আগ্নেয়াস্ত্র, জিহাদি বই উদ্ধার করা হয়েছে। এরপর পলাতকদের গ্রেফতারে অভিযানও শুরু হয়।

প্রশাসনের দাবি, গত বছরের নভেম্বরে সুলাওয়েসির দ্বীপের চার গ্রামে যে নিষ্ঠুর গণহত্যা হয়েছিল, তার জন্য এমআইটিকে দায়ী করেছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা। যদিও সেই গণহত্যার দায় জঙ্গি গোষ্ঠীটি কখনো স্বীকার করেনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে