টাচ নিউজ ডেস্কঃ ক্ষমতা পুনঃরুদ্ধারের লড়াইয়ে ইমরান খান। রাজধানী ইসলামাবাদসহ নানা শহরে চলছে তার লংমার্চসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচি। নতুন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফের সরকারও ইমরানকে এসব কর্মসূচি থেকে বিরত রাখার পরিকল্পনা করতে ব্যস্ত।

ইমরান আর শাহবাজ, এই দুই পক্ষের কথা ছোড়াছুড়িতে উত্তপ্ত পাকিস্তানের রাজনীতি।

মুসলিম লিগ-নওয়াজের ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ গতকাল সোমবার বলেছেন, ইমরান খানের ব্যক্তিগত বাসভবন ছিল দুর্নীতির প্রধান কার্যালয়।
দুর্নীতি চর্চার জন্য ইমরান নিজের বাসভবন বানি গালাকে ব্যবহার করেছেন বলেই অভিযোগ নওয়াজ শরীফের কন্যা মরিয়মের।

এসময় ইমরান খানের স্ত্রী বুশরা বিবির বান্ধবী ফারাহ খানের প্রসঙ্গও টেনে আনেন মরিয়ম। অভিযোগ আছে, ইমরান ক্ষমতা ছাড়ার আগেই বিপুল অর্থ নিয়ে দুবাইতে পাড়ি জমিয়েছেন ফারাহ।

মরিয়ম বলেন, ‘এটা একটা ছোট ঘটনা, যার মাধ্যমে খোলা চোখেই বিশ্ব ও দেশবাসী বিষয়টি বুঝতে পেরেছে। প্রত্যেকের জানা উচিত চাকরি পাওয়া, বদলি হওয়াসহ নানা ঘটনায় রমরমা ঘুম বাণিজ্য হয়েছে।

এছাড়াও মুদ্রাস্ফীতি ও বিদেশের সাথে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার জন্যও ইমরানকে দুষছেন মরিয়ম নওয়াজ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে