টাচ নিউজ ডেস্কঃ ইউক্রেন সীমান্তবর্তী রুশ শহর ব্রায়নস্কের একটি তেলের ডিপোতে আগুন লেগেছে। আগুন লাগার অতি অল্প সময়ের মধ্যেই ডিপো ও তার আশপাশের এলাকায় তা ছড়িয়ে পড়ে।

রোববার মধ্যরাতের পর এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়ে বলে নিজেদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে রাশিয়ার জরুরি অবস্থা বিষয়ক মন্ত্রণালয়। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ইতোমধ্যে সেখানে ফায়ারসার্ভিস ও উদ্ধারকর্মীদের পাঠানো হয়েছে। হতাহতের কোনো তথ্য এখনও জানা যায়নি।

জরুরি অবস্থা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ইউক্রেন যুদ্ধের সঙ্গে এই অগ্নিকাণ্ডের সম্পর্ক থাকার কোনো প্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি। তবে গত সপ্তাহে ব্রায়োনস্কের আবাসিক এলাকায় হেলিকপ্টার হামলা চালিয়েছিল ইউক্রেনের সেনাবাহিনী। সেই হামলায় ৭ জন আহত হয়েছিলেন।

গত ১ এপ্রিল ইউক্রেন সীমান্তবর্তী অপর রুশ শহর বেলগোরোদে একটি তেলের ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড হয়েছিল। সেই ঘটনার জন্য রাশিয়া ইউক্রেনকে দায়ী করলেও দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্র কুলেবা সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন।

ব্রায়ানস্ক শহর থেকে ১৫৪ কিলোমিটার উত্তরপূর্বে রাশিয়া-ইউক্রেন সীমান্ত। সীমান্তের ওপারে ইউক্রেনের সুমি ও চেরনিহিভ শহর। রাশিয়ার রাজধানী মস্কো থেকে ব্রায়ানস্কের দূরত্ব ৩৮০ কিলোমিটার।

পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোকে ঘিরে দ্বন্দ্বের জেরে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান শুরুর নির্দেশ দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তার দু’দিন আগে ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দুই এলাকা দনেৎস্ক ও লুহানস্ককে (দনবাস রিপাবলিক) স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেন তিনি।

সোমবার ৬১তম দিন অর্থাৎ দু’মাস পূর্ণ করেছে এই সামরিক অভিযান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে