টাচ নিউজ ডেস্ক: দিনাজপুরের হিলিতে মনিষা খাতুন (৯) নামে এক শিশুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার মায়ের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মা রোজিনা খাতুনকে (২৭) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (০৬ আগস্ট) সকালে হাকিমপুর উপজেলার বৈগ্রাম এলাকায় শিশুটিকে পেটানো হয়। পরে সন্ধ্যায় দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর শনিবার (০৭ আগস্ট) দুপুরে অভিযুক্ত মা রোজিনা খাতুনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

নিহত মনিষার বাবা বলেন, আমার মেয়ে বোনের বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার কারণে তার মা শুক্রবার সকালে বাড়ির সামনে তাকে বেদম মারধর করে। একপর্যায়ে মেয়ে গুরুতর আহত হলে তার মা নিজেকে বাঁচানোর জন্য মেয়েকে গলায় রশি দিয়ে বাড়িতে ঝুলিয়ে রাখে। পরে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে মনিষাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। অবস্থা খারাপ হলে ডাক্তার তাকে দিনাজপুর নিয়ে যেতে বলেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মনিষা মারা যায়। আমি আমার স্ত্রীর ফাঁসি চাই।

স্থানীয় বাসিন্দা সিদ্দিকুর রহমান রবিন বলেন, সন্তানের নিরাপদ স্থান হলো মায়ের কোল। সেই মায়ের হাতে মনিষাকে মরতে হলো। আমরা তার মায়ের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

হাকিমপুর থানার ওসি (তদন্ত) মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঢাকা পোস্টকে জানান, মেয়েকে পিটিয়ে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগে রোজিনা খাতুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দুপুরে তাকে দিনাজপুর আদালতে পাঠানো হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে