টাচ নিউজ ডেস্ক:
আবরার ফাহাদ হত্যার আসামি অনিক সরকারকে কারাগারে প্রবেশ করতেই পিটিয়েছে অন্য কয়েদিরা। ডিবির হাতে গ্রেপ্তার রিমান্ড শেষে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার পর কারাগারে নেয়া হয় অনিককে। এ সময় কারাগারে প্রবেশ করতেই উত্তেজিত কারাবান্দিরা হামলে পড়ে তার ওপর।
কারাগার সূত্রে জানা গেছে, আবরারকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা জানার পর সারাদেশে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। বিষয়টি নাড়া দেয় কারাগারে বন্দি থাকা কয়েদিদের মাঝেও। ক্ষুব্ধ হয়ে অনিককে কারাগারের সেলে পাওয়া মাত্রই পিটুনি শুরু করেন।
তবে অল্পের জন্য রেহাই পায় আবরার হত্যার ওই আসামি। কারারক্ষীরা অনেক চেষ্টা করে তাকে ক্ষুব্ধ কয়েদিদের কাছ থেকে রক্ষা করে অনত্র সরিয়ে নেন।

অনিক সরকারের বাড়ি রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার বড়ইকুড়ি গ্রামে। অনিক ওই গ্রামের বাসিন্দা ও কাপড় ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেনের ছেলে। তাদের গ্রামের বাড়ি উপজেলার কৃষ্ণপুরে হলেও ব্যবসায়িক কাজে পুরো পরিবার মোহনপুর উপজেলা সদরের বড়ইকুড়ি গ্রামে বসবাস করে। দুই ভাইয়ের মধ্যে অনিক ছোট। এ ছাড়া তাদের পেট্রল পাম্প এবং সারের ডিলারশিপের ব্যবসা রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে