পারভেজ উজ্জ্বল, নীলফামারী: “সন্ত্রাসীর ঠাই আওয়ামীলীগে নাই ” এই আলোকে আজ ২১ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকেলে নীলফামারী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুজার রহমানকে সাবেক জেলা আওয়ামীলীগের যুব সম্পাদক নাহিদুল ইসলাম নিক্সন ধারালো অস্ত্রদিয়ে জখমের প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদের সভাপতিত্বে এবং সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ সেক্রেটারি ওয়াদুদ রহমানের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাবেক জেলা পরিষদের প্রশাসক জেলা আওয়ামীলীগ সেক্রেটারি মমতাজুল হক, যুবলীগ সেক্রেটারি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, ভাইস চেয়ারম্যান দীপক চন্দ্র চক্রবর্তী, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুশফিকুর ইসলাম রিন্টু,জেলা ছাত্রলীগের সেক্রেটারি মাসুদ সরকার, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রোকেয়া খানম রুপালী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সান্ত্বনা চক্রবর্তী প্রমুখ।

প্রধান অতিথি এ্যাড, মমতাজুল হক বলেন,” জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা যখন দেশকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করে বিদেশের কাছে সুনাম তুলে ধরছে, তখন একটি কুচক্রী মহল সেই সুনাম কে ধুলিমাখা করতে উঠেপড়ে লেগেছে। আমরা আমাদের রক্ত দিয়ে হলেও জননেত্রীর সন্মান অক্ষুণ্ণ রাখতে বদ্ধপরিকর”।

সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ বলেন, ” সন্ত্রাসীরা কোন দলের হতে পারেনা, তার প্রমাণ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুজার রহমান আজ আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে, আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই”।

ছাত্রলীগের সেক্রেটারি মাসুদ সরকার বলেন, ” সন্ত্রাসীর ঠাই, আওয়ামীলীগে নাই। দলে থাকতে হলে সিনিয়রদের সন্মান করতে হবে, তাহলে ছাত্রলীগ তাদের সন্মানিত করবে, না হলে দাঁতভাঙ্গা জবাব দেয়া হবে”।

উল্লেখ্য, গত ২০ সেপ্টেম্বর রবিবার রাতে নীলফামারী সদর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুজার রহমান কে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে সন্ত্রাসীরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে