টাচ নিউজ ডেস্ক: অনলাইনে বেটিং বা জুয়ার সাইটে ব্যবহার হচ্ছে ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ভার্চুয়াল মুদ্রা। আইপিএল-বিপিএলের মতো আন্তর্জাতিক আসরগুলোতে জুয়া খেলায় ব্যবহার হচ্ছে বিটকয়েন, এথেরিয়ামসহ বিভিন্ন ধরনের ক্রিপ্টোকারেন্সি। চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতারের পর পুলিশ বলছে, আন্তর্জাতিক সাইবার অপরাধীদের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে তাদের। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভার্চুয়াল মুদ্রার অবৈধ লেনদেনে জড়িয়ে পড়ছে তরুণরা।

বিটকয়েন এক ধরণের ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ভার্চুয়াল মুদ্রা। এ মুদ্রা ধরা ছোঁয়া যায় না। এর অস্তিত্ব কেবল অনলাইন দুনিয়ায়। কারো ব্যক্তিগত ওয়ালেট থেকে আরেকজনের ওয়ালেটে লেনদেন হয়। ওয়ালেট হলো ব্যাক্তিগত ডেটাবেইস যা কম্পিউটার ড্রাইভ, স্মার্টফোন বা ক্লাউডে সঞ্চিত থাকে।

বাংলাদেশে ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ভার্চুয়াল মুদ্রার ব্যবহার অবৈধ। তারপরেও জুয়া, হুণ্ডি, চোরাচালান, সাইবার চাঁদাবাজিসহ অবৈধ লেনদেনে ব্যবহৃত হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ভার্চুয়াল মুদ্রা।

নিষিদ্ধ বিটকয়েন লেনদেনের এমন একটি চক্রের সন্ধান পেয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতার করা হয়েছে চক্রের মূল হোতাকে। তার দেওয়া তথ্যের জালে ধরা পড়েছে আরও দুজন। তাদের কাছে পাওয়া গেছে ভার্চুয়াল মুদ্রা কেনাবেচার কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন উপাদান।

অনলাইন বেটিং বা জুয়ার সাইটে বিটকয়েনসহ আরও নয় ধরণের ভার্চুয়াল মুদ্রার অবৈধ লেনদেন করে আসছিল চক্রটি।

ডিবির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের সহকারী কমিশনার হাসান মুহতারিম সজীব বলেন, তারা অনলাইন ফ্লাটফর্মে বিভিন্ন ধরনের গ্যামলিং সাইটে ট্রেড করত। পাশাপাশি এমএল একটা ট্রেডিং চালু করেছিল যেটার মাধ্যমে এনডেজার পর্যন্ত একটা কমিশনিং ব্রেজড ক্রিপ্টোকারেন্সি তারা আনতে পারতো।

পুলিশ বলছে, এ চক্রের সঙ্গে দেশের বাইরের সাইবার অপরাধীদের জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়েছেন।

ডিবির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের উপ কমিশনার মুহাম্মদ শরীফুল ইসলাম বলেন, এর মাধ্যেমে সন্ত্রাসে অর্থায়নে ব্যাপক সুযোগ থাকে। মাদক পাচার করার ক্ষেত্রে অর্থের সংশ্লিষ্টতা থাকতে পারে বা অবৈধ অস্ত্র কেনাবেচার সঙ্গেও সম্পর্ক থাকতে পারে।

সাইবার বিশেষজ্ঞ আরিফ মঈনুদ্দিন বলছেন, এসব ভার্চুয়াল মুদ্রার অবৈধ লেনদেনে জড়িয়ে পড়ছে তরুণরা।

২০১৭ সালে বাংলাদেশ ব্যাংক এ ধরণের লেনদেনের মাধ্যমে আর্থিক এবং আইনগত ঝুঁকি আছে বলে সর্তকতা জারি করেছিল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে